Saturday , August 18 2018
Breaking News
Home / অন্যান্য / সাংবাদিক শিমুলের স্ত্রীর চাকরির ব্যবস্থা করা হয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
shimul

সাংবাদিক শিমুলের স্ত্রীর চাকরির ব্যবস্থা করা হয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

nasimএকুশবিডি24ডটকম। সাংবাদিক শিমুলের স্ত্রীকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন এসেনসিয়াল ড্রাগস কোম্পানী লিমিটেড-এ চাকরির ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী রোববার রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নবসজ্জিত জরুরি বিভাগ, ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টার এবং বাগান উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা বলেন।
মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সাংবাদিক শিমুলের হত্যাকারী যেই হোক না কেন তাকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শান্তির ব্যবস্থা করবে সরকার। ইতোমধ্য শিমুলের স্ত্রীর চাকরির ব্যবস্থা করা হয়েছে।
হাসপাতালে দালাল চক্র যেন ভিড়তে না পারে সেদিকে সতর্ক থাকতে পরিচালকদের নির্দেশ দিয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী বলেন, সরকারি হাসপাতালে এখন সাধারণ মানুষ কম খরচে অত্যাধুনিক চিকিৎসা সেবা পাচ্ছে। দেশের হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসক সংকট নেই বললেই চলে। ১০ হাজার নার্স নিয়োগের পর তারা এখন রোগীর সেবা দিচ্ছেন। তাঁরা মানসম্মত সেবা দিলে রোগীরা অন্য কোথাও যাবার কথা ভাববেন না। তাই রোগীর যথাযথ সেবা নিশ্চিত করার পাশাপাশি হাসপাতালে দালালদের অনুপ্রবেশ রোধে সকলকে সচেষ্ট থাকতে হবে।
এর আগে স্বাস্থ্যমন্ত্রী হাসপাতাল প্রাঙ্গণে ওষধি ও ফুলগাছের বাগান উদ্বোধন করেন। বাগানের প্রবেশ মুখে তিনি এসময় একটি নিম গাছের চারা রোপন করেন।
পরে তিনি হাসপাতালের ওয়ান স্টপ সার্ভিস কাউন্টার উদ্বোধন করে চারটি বুথ সমৃদ্ধ কাউন্টারের সেবা প্রদান কার্যক্রম প্রত্যক্ষ করেন। হাসপাতালের সম্মুখভাগে স্থাপিত নবসজ্জিত জরুরি বিভাগেরও উদ্বোধন করেন মন্ত্রী।
এসময় সাবেক স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী শামসুল হক টুকু, হাসপাতালের পরিচালক ডা. উত্তম বড়ুয়া, কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মাকসুদুল আলমসহ মন্ত্রণালয় ও হাসপাতালের চিকিৎসক ও নার্সবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Check Also

78396943

সিগারেট ছাড়ার সহজ উপায়

একুশবিডি24ডটকম। আনিস সুমন এক বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কাজ করে। সেখানে তার কাজের চাপ প্রচুর। প্রতি সপ্তাহে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *