Thursday , November 15 2018
Breaking News
Home / অর্থনীতি / চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ প্রথমবারের মতো বে টার্মিনাল নির্মাণ করছে
2016-12-07_4_777595

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ প্রথমবারের মতো বে টার্মিনাল নির্মাণ করছে

2016-12-07_4_777595চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ (সিপিএ) দেশের প্রধান সমুদ্র বন্দরের সক্ষমতা জোরদারে প্রথমবারের মতো সমুদ্রে ১২০০ একর জমির উপর বে টামিনাল নির্মাণ করতে যাচ্ছে।
বন্দরের মাধ্যমে আমদানি-রফতানি কন্ট্রেইনার হ্যান্ডেলিংয়ের অব্যাহত চাপ কমাতে বে টার্মিনাল নির্মাণ করা হচ্ছে।
টার্মিনালে সম্ভাব্যতা যাচাই প্রতিবেদনে আশা প্রকাশ করা হয়, এই টার্মিনালের মাধ্যমে পুরোমাত্রায় কন্টেইনার হ্যান্ডেলিংয়ে নতুন যুগের সূচনা ঘটবে।
সিপিএ’র নির্বাহী প্রকৌশলী রফিউল আলম বাসসকে জানান, জার্মান কোম্পানি শেলরন/এইচপিসি/কেএস/জেবি গত আগস্ট থেকে ৭ দশমিক ৯ কোটি টাকা ব্যয়ে সম্ভাব্যতা যাচাই করছে।
প্রকল্পের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের জন্য ১৩টি প্রতিষ্ঠান প্রতি বিডে অংশ নেয়। সিপিএ এর মধ্যে শেলরন/এইচপিসি/কেএস/জেবি-কে নির্বাচিত করে এবং গত ১৭ আগস্ট সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করে।
প্রস্তাবিত বে টার্মিনালের সম্ভাব্যতা যাচাই সম্পন্ন করে ২০১৭ সালের মে মাসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য বলা হয়েছে। এতে চট্টগ্রাম বন্দরের মাদার ভেসেলগুলো এখানে ভিড়তে পারবে।
সিপিএ নির্বাহী প্রকৌশলী বলেন, সবকিছুই গুরুত্বপূর্ণ এই বন্দরের প্রকল্পের সম্ভাব্যতা যাচাই প্রতিবেদন অনুযায়ী হবে।
জার্মান সমীক্ষক দল নগরীর হালিশহর উপকূলে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এই টার্মিনালের স্থান নির্ধারণ করেছে। তিনি বলেন, বৃহৎ জাহাজগুলো নোঙরের জন্য এই এলাকা যথেষ্ট।
সিপিএ কর্মকর্তারা বলেন, বড় জাহাজগুলো নোঙরের জন্য এখানে পানির ১৪ মিটার গভীরতা পর্যাপ্ত। এই গভীরতা পটুয়াখালীর পায়রা ও কক্সবাজারের মহেষখালীর প্রতীক্ষিত গভীর সমুদ্র বন্দরের গভীরতার প্রায় সমান।
প্রাথমিক সমীক্ষায় এই প্রকল্পের উজ্জ্বল সম্ভাবনা বিবেচনা করে সিপিএ প্রস্তাবিত স্থানে টার্মিনাল নির্মাণ করছে।
মূল বন্দর চ্যানেলের বাইরে চট্টগ্রাম রফতানি প্রক্রিয়াজাতকরণ এলাকায় (সিইপিজেড) পশ্চিম অংশে সমুদ্রে জেগে ওঠা চরে এই টার্মিনাল তৈরি হচ্ছে। পতেঙ্গা পর্যটন সি বীচ থেকে স্থানটি দেখা যায়।
চট্টগ্রাম বন্দরের প্রধান এস্টেট অফিসার জিল্লুর রহমান বলেন, কুতুবদিয়া পয়েন্ট বহিঃনোঙরে বড় জাহাজ থেকে লাইটার জাহাজে চট্টগ্রাম বন্দরে কন্টেইনার আনা হয়। এখানকার গভীরতা ১৪ মিটার।
বে টার্মিনাল থেকে গভীর সমুদ্র বন্দরের সুবিধা পাওয়া যাবে।
সূত্র : বাসস

Check Also

unnamed-file-279

মার্চ মাসে ঢাকা থেকে কুয়ালালামপুর ও সিঙ্গাপুর রুটে ফ্লাইট শুরু

একুশবিডি24ডটকম। মার্চ মাসে ঢাকা থেকে কুয়ালালামপুর ও সিঙ্গাপুর রুটে ফ্লাইট শুরু করছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স দেশের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *