Monday , June 18 2018
Breaking News
Home / শিক্ষা / ক্যাম্পাস / কারিগরি শিক্ষা খাতের ৫৮১ জন শিক্ষক-কর্মকর্তা চীনে প্রশিক্ষণ নিবেন : ১ম ব্যাচের প্রশিক্ষণ শুরু
25253535

কারিগরি শিক্ষা খাতের ৫৮১ জন শিক্ষক-কর্মকর্তা চীনে প্রশিক্ষণ নিবেন : ১ম ব্যাচের প্রশিক্ষণ শুরু

25253535একুশবিডি24ডটকম। বাংলাদেশের কারিগরি শিক্ষার মান উন্নয়নে এ খাতের ৫৮১ জন শিক্ষক-কর্মকর্তা চীনে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করবেন। এরই অংশ হিসেবে চীনের গুয়াংজো ইন্ড্রাষ্টি ও ট্রেড টেকনিশিয়ান কলেজে বাংলাদেশের কারিগরি শিক্ষা খাতের প্রথম ব্যাচের ২০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারির ১০ দিনব্যাপী বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে।
চীনে সফররত শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ আজ শুক্রবার সকালে এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। এ সময় গুয়াংজো মিউনিসিপ্যালিটির ভাইস মেয়র মি. ডল মিংসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
আজ ঢাকায় প্রাপ্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলা হয়।
এতে জানানো হয়েছে, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ও কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অশোক কুমার বিশ্বাস, স্টেপ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মোঃ ইমরান, এনএসডিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ.বি.এম. খোরশেদ আলম, স্টেপ প্রকল্পের উপ-প্রকল্প পরিচালক জয়দেব চন্দ্র সাহা ও প্রকৌশলী মো: নুরুজ্জামান প্রমুখ এসময় উপস্থিত ছিলেন।
নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, শিক্ষা বাংলাদেশের অগ্রাধিকার খাত, কারিগরি শিক্ষা হলো অগ্রাধিকারের অগ্রাধিকার।
তিনি বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশে কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষার্থী ভর্তির হার ১৪ শতাংশের উপরে রয়েছে। এ হার আগামী ২০২০ সালের মধ্যে ২০ শতাংশে এবং ২০৩০ সালের মধ্যে ৩০ শতাংশে উন্নীত করার লক্ষ্যে সরকার নানামুখি উদ্যোগ নিয়েছে।
এ খাতের অগ্রগতি তরান্বিত করতে সরকার শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে ভাগ করে কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগ করেছে বলেও তিনি জানান।
নুরুল ইসলাম নাহিদ, চীনকে বাংলাদেশের পরীক্ষিত বন্ধু হিসেবে অভিহিত করে বলেন, বাংলাদেশের শিক্ষা, যোগাযোগসহ বিভিন্ন খাতে চীন উল্লেখযোগ্য অবদান রেখে চলেছে। কারিগরি খাতে এ প্রশিক্ষণ সহযোগিতা বাংলাদেশের প্রযুক্তিগত উন্নয়নে মূল্যবান ভূমিকা রাখবে।
ভবিষ্যতে চীনের সাথে সু-সম্পর্ক আরো বৃদ্ধি পাবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
নাহিদ বলেন, সিঙ্গাপুর সরকারও বাংলাদেশের কারিগরি খাতের ৪২০ জন শিক্ষক-কর্মকর্তাকে প্রশিক্ষণ প্রদান করেছে। ২০১৯ সালের মধ্যে তারা আরো ১১৫০ জনের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম সমাপ্ত করবে। ভারতের সাথেও এ ধরণের প্রশিক্ষণের বিষয় নিয়ে তৎপরতা চলছে।
তিনি বলেন, ‘২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে আমরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।’
কারিগরি শিক্ষাঙ্গনের ৫৮১ জন শিক্ষক ও কর্মকর্তাকে প্রশিক্ষণ প্রদানের লক্ষ্যে গত নভেম্বর মাসে স্কিলস এন্ড ট্রেনিং এনহ্যান্সমেন্ট প্রজেক্ট (এসটিইপি) ও চীনের গুয়াংজো ইন্ড্রাষ্টি ও ট্রেড টেকনিশিয়ান কলেজের মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এর আওতায় ২০ জন করে বিভিন্ন ব্যাচে শিক্ষক ও কর্মকর্তাদের ১০ দিন ও ২১ দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে।
এরপরে শিক্ষামন্ত্রী নাহিদ আজ গুয়াংজোতে চীনের গুয়াংজো ইন্ড্রাষ্টি ও ট্রেড টেকনিশিয়ান কলেজের শিক্ষার্থীদের স্কিলস্ কম্পিটিশন উদ্বোধন করেন এবং কলেজের ল্যাব ও ওয়ার্কশপ পরিদর্শন করেন।
পরে তিনি গুয়াংজোর অরিয়েন্টাল রিসোর্টে মেয়র প্রদত্ত রাষ্ট্রীয় ভোজে অংশ গ্রহণ করেন।সুত্র : বাসস

Check Also

DSC03465

মূর্তি স্থাপন ধর্মীয় সম্প্রীতি বিনষ্ট করার ষড়যন্ত্র -মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীম

মূর্তি স্থাপনের মাধ্যমে আদিকাল থেকে চলে আসা বাংলার ধর্মীয় সম্প্রীতিকে বিনষ্ট করা হচ্ছে। এদেশের মানুষ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *